Home » Freelancing » ফ্রিল্যান্সার ডট কম এ কীভাবে অ্যাকাউন্ট খুলবেন এবং বিড করবেন
ফ্রিল্যান্সার ডট কম

ফ্রিল্যান্সার ডট কম এ কীভাবে অ্যাকাউন্ট খুলবেন এবং বিড করবেন

সারাবিশ্বে ফ্রিল্যান্সিংকে আয়ের বড় উৎস ও কর্মসংস্থানের বৃহৎ সেক্টর হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ফ্রিল্যান্সিং হচ্ছে অন্য কারও

দ্বারা নিযুক্ত না হয়ে স্বতন্ত্র সংস্থা হিসাবে কাজ করা। ফ্রিল্যান্সিংয়ের জন্য বর্তমানে অনেক মার্কেটপ্লেস রয়েছে যার মধ্যে

ফ্রিল্যান্সার ডট কম অন্যতম। আজ আলোচনা করব কিভাবে ফ্রিল্যান্সার ডট কম এ অ্যাকাউন্ট তৈরি করবেন এবং অর্থ উপার্জন

করবেন। তবে তার আগে ফ্রিল্যান্সার ডট কম সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাকঃ

ফ্রিল্যান্সার ডট কমঃ 

ফ্রিল্যান্সার ডট কম এমন একটি ওয়েবসাইট যেখানে বিশ্বে 247 টিরও বেশি দেশের 45 মিলিয়নেরও বেশি ফ্রিল্যান্সার কাজ করে।

ফ্রিল্যান্সার ডটকম হল আপওয়ার্কের অনুরূপ আরেকটি জনপ্রিয় ডিজিটাল ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস।

এটি একটি অনলাইন মার্কেটপ্লেস যেখানে ফ্রিলান্সাররা কাজের বিনিময়ে অর্থ উপার্জন করে এবং Buyer অর্থের বিনিময়ে তাদের

কাজ করিয়ে নেয়। ওয়েবসাইট ডেভলপমেন্ট, কন্টেন্ট রাইটিং, সফটওয়্যার ডেভলপমেন্ট,লোগো ডিজাইন, ডেটা এন্ট্রি, ডিজিটাল

মার্কেটিং, অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, অ্যাকাউন্টিং এবং এমনকি আইনি পরিষেবাগুলির ক্ষেত্রে প্রকল্পগুলির জন্য ফ্রিল্যান্সারদের

সন্ধান করতে পারেন। এখানে কাজের প্রধান ক্যাটাগরি ছাড়াও হাজার হাজার সাব-ক্যাটাগরি রয়েছে।

কিভাবে ফ্রিল্যান্সার ডট কম এ অ্যাকাউন্ট খুলবেন?

একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করার আগে আপনাকে এমন একটি niche সিলেক্ট করতে হবে আপনি যে কাজে বেশি আগ্রহী এবং

আপনি কোন বিষয়টি নিয়ে অনেক এগিয়ে যেতে পারবেন। Niche সিলেকশনের ব্যাপারে খুবই সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে।

যেমনঃ আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন পছন্দ করেন এবং দক্ষ হন আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইনের কাজ করার জন্য একটি ফ্রিল্যান্সার

অ্যাকাউন্ট create করতে পারেন।

চলুন দেখে নেই কিভাবে ফ্রিল্যান্সার ডট কম এ অ্যাকাউন্ট খুলবোঃ

পদক্ষেপ ১- আপনার একাউন্ট তৈরী করুন।

  • অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হলে প্রথমে Www.freelancer.com এ যান। উপরের ডানদিকে “Sign up” ক্লিক করুন।
  • আপনি সাইন-আপ বোতাম বা ওয়ার্ক বোতামটি ক্লিক করার পরে আপনাকে এমন একটি নতুন পৃষ্ঠায় নিয়ে যাওয়া হবে
  • যেখানে আপনাকে আপনার অ্যাকাউন্টের জন্য বিবরন চাইবে। যেমন আপনার ব্যবহারকারীর নাম এবং পাসওয়ার্ড এবং ইমেইল দিতে হবে।

  • তারপর “Hire and work” select করুন। আপনি Hire and work সিলেক্ট করলে ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করতে পারবেন আবার Buyer হিসেবে ফ্রিল্যান্সার hire করতে পারবেন।
  • ফ্রিল্যান্সার ডটকম আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে নিবন্ধন করা এবং শুরু করা সহজ করে তোলে। আপনি যদি এই বিকল্পটি ব্যবহার করতে চান তবে কেবল একটি ফেসবুক দিয়ে সাইন আপ ক্লিক করুন। তারপরে “continue” ক্লিক করুন এবং আপনার ব্যবহারকারীর Status, নাম এবং যে কাজ করতে চান তা উল্লেখ করুন। “Create account” ক্লিক করুন।

পদক্ষেপ ২- অ্যাকাউন্ট ভেরিফিকেশন করুন।

একবার আপনি registered হয়ে গেলে, আপনাকে অর্থপ্রদানের জন্য অপশন সিলেক্ট করতে হবে, যেমন- ব্যাংক অ্যাকাউন্ট বা

ক্রেডিট কার্ড ইত্যাদি। এরপর ফ্রিল্যান্সার ডটকম আপনাকে আপনার ফোন নম্বর এবং ইমেল ঠিকানা নিশ্চিত করতে বলবে।

আপনার অ্যাকাউন্টে নিজের দক্ষতা উল্লেখ করে দিতে হবে যাতে ফ্রিল্যান্সার ডটকম আপনাকে সর্বাধিক যোগ্যতার জন্য

কাজগুলি প্রদর্শন করতে পারে।

পদক্ষেপ ৩ – ফ্রিল্যান্সারের membership সিলেক্ট করুন।

ফ্রিল্যান্সার ডটকম সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। তবে শুরুতে সাইটটি আপনাকে ডিফল্টরূপে এই প্রক্রিয়া চলাকালীন এক মাসের free trial

membership দেয়। তবে আপনি মাস শেষ হওয়ার আগে যে কোনও সময় আপনার সদস্যপদটি বাতিল, ডাউনগ্রেড বা আপগ্রেড

করতে পারেন। তবে আপনি যদি এক মাসের জন্য free trial membership নিয়ে থাকেন তাহলে আপনি প্রতিদিন ৮ টি কনটেস্টে

অংশগ্রহন করতে পারবেন তার বেশি পারবেন না। আপনি প্রতি মাসে ১০০ টি বিড করতে পারবেন এবং ৮০ টি skill গিগ করতে

পারবেন। আরও বেশি বিড এবং skill সেটগুলো বাড়াতে হলে membership আপগ্রেড করতে হবে। এটি আপনাকে আরও বেশি

অর্থোপার্জনে সহায়তা করে। এটি বিশেষত যারা বিভিন্ন niche নিয়ে কাজ করে তাদের পক্ষে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

পদক্ষেপ ৪ – আপনার প্রোফাইল তৈরি করুন।

অ্যাকাউন্ট তৈরি করার পরে প্রোফাইল তৈরি করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ । যদি কেউ অনলাইনে ফ্রিল্যান্সার হতে এবং অনলাইনে

ফ্রিল্যান্সের কাজ করতে চায় তাকে খুব strong প্রোফাইল তৈরি করতে হবে। প্রোফাইল হচ্ছে কাজ পাওয়ার জন্য প্রবেশদ্বার। এ

টি নিয়োগকারীদের আপনার সম্পর্কে এবং আপনার দক্ষতা সম্পর্কে ধারণা দেয়। এই কারণে, আপনার প্রোফাইলে যতটা সম্ভব

সম্পূর্ণ এবং বিস্তারিত ভাবে বর্ণনা দেওয়া হওয়া উচিত।

কিভাবে প্রোফাইল তৈরি করেবেন?

  • ফ্রিল্যান্সার.কম এ আপনার অ্যাকাউন্টে লগ ইন করুন। উপরের বাম কোণে অ্যাকাউন্ট আইকনে ক্লিক করুন।
  • আপনি একবার আপনার প্রোফাইল পৃষ্ঠায় আসার পরে আপনার পোর্টফোলিও, দক্ষতা এবং রিভিউ, experience, education ইত্যাদি যুক্ত করুন।
  • আপনি সময়ের সাথে সাথে সাইটে কাজ করার কারণে এগুলি আপ টু ডেট রাখা উচিত। এছাড়াও, আপনি যদি দ্রুত উন্নতি করতে চান এবং আরও ভাল ফ্রিল্যান্স প্রকল্পগুলি প্রদান করতে চান তবে আপনি পরীক্ষা দিন।
  • এখানে অন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদানটি হল আপনার প্রোফাইল ছবি। প্রোফাইলে আপনি একটি প্রফেশনাল হেডশট ইমেজ দিন। আপনার হাসি খুশি এবং প্রাকৃতিক এমন কোন ছবি দিন কারন আপনার ছবি দেখে ক্লায়েন্ট আপনার ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে ধারণা করে করে থাকেন। প্রোফাইল পিকচারটি ন্যূনতম পিক্সেলটি 280 × 280 এর চেয়ে কম নয় এবং 2MB হওয়া উচিত।

পদক্ষেপ ৫ – Project সন্ধান করুনঃ

ফ্রিল্যান্সার ডট কম আপনাকে অনলাইনে প্রকল্প এবং ফ্রিল্যান্সিংয়ের কাজ সন্ধান করার বিভিন্ন অপশন দেয়। আপনি আপনার

দক্ষতা অনুযায়ী প্রকল্পগুলো ব্যবহার করুন, প্রকল্পগুলো ব্রাউজ করুন, লোকাল জব ব্রাউজ করে কাজ অনুসন্ধান করতে পারেন।

এই বিকল্পগুলির মধ্যে কয়েকটিতে অতিরিক্ত ফিল্টার রয়েছে, যেমন- অবস্থান নির্ধারণ করা এবং ফিক্সড বা hourly price নির্ধারণ

করা।

প্রজেক্ট ফিড পৃষ্ঠা রয়েছে যা আপনাকে প্রকল্পের পাশাপাশি প্রতিযোগিতার জন্য লাইভ বিজ্ঞপ্তি দেয়। আপনার প্রোফাইলে আপনি

যে পরিমাণ দক্ষতা যুক্ত করেছেন তা আপনার প্রকল্পের ফিড পেজে দেখান হয়।

ফ্রিল্যান্সার ডট কম এ বিড করবেন কীভাবে?

ফ্রিল্যান্সার ডটকম এ বিড প্রক্রিয়া অত্যন্ত সহজ। মেনুতে ব্রাউজ ট্যাবে ক্লিক করুন।

একটি ড্রপ-ডাউন তালিকা উপস্থিত হবে যেখানে আপনি কোন প্রকল্পের জন্য চেষ্টা করার সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন এবং

ব্যবহারকারীর বিডগুলি যথাযথভাবে ব্যবহারকরতে পারেন। ফ্রি সদস্যরা কেবলমাত্র ৮টি বিড করতে পারবেন।

তবে আপনি আপনার অভিজ্ঞতা, দক্ষতা অনুযায়ী বিড করলে কাজ পাবার সম্ভাবনা বেশি থাকে। প্রকল্পে আপনি যে কাজটি

করছেন তার সাথে সর্বাধিক প্রাসঙ্গিক বা পূর্ববর্তী অভিজ্ঞতা উল্লেখ করুন।

ক্লায়েন্টরা প্রায়শই তাড়াতাড়ি কাজ করিয়ে নিতে চায়। সুতরাং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপনার বিডগুলোর যে কোনও প্রতিক্রিয়ার

জবাব দেওয়ার চেষ্টা করুন। আপনি যে টাইম জোনে আছেন সে সম্পর্কেও স্পষ্ট থাকুন, কারণ এটি ক্লায়েন্টদের দ্রুত সংযোগের

জন্য সেরা সময়টি বুঝতে সহায়তা করে।

সবশেষে, আপনি যে সমস্ত কাজের জন্য বিড করেছেন তার জন্য যদি আপনি নিয়োগ না পান তবে নিরুৎসাহিত হবেন না।

সময়ের সাথে সাথে, সাইটে আপনার রেফারেন্স এবং রেটিংটি বাড়ার সাথে সাথে আপনি সম্ভবত আরও অফার এবং contract

পাবেন।

বেশি ক্লায়েন্ট পেতে অ্যাকাউন্টটি যেভাবে তৈরি করবেনঃ 

ফ্রিল্যান্সার ডটকম এ ফ্রিল্যান্সার হিসাবে কাজ শুরু করার জন্য অনেকগুলি পদক্ষেপ রয়েছে, যেমন-

  • আপনার সমস্ত প্রোফাইল সঠিকভাবে পূরণ করুন।
  • একটি দুর্দান্ত পোর্টফোলিও তৈরি করুন।
  • আপনার কাজের গুণগতমানের দিকে মনোনিবেশ করার বিষয়টি নিশ্চিত করুন।
  • আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতা অন্তর্ভুক্ত করার বিষয়টি নিশ্চিত করুন।
  • ফ্রিল্যান্সার ওয়েবসাইটে পরীক্ষা দেওয়ার মাধ্যমে certificate অর্জন করুন।

এই ভাবে আপনি ফ্রিল্যান্সার ডটকম এর অ্যাকাউন্ট তৈরি করলে আপনার কাজ পেতে সুবিধা হবে এবং আপনি বেশি ক্লায়েন্ট

পেতে পারেন।

শেষকথাঃ

বিশ্বজুড়ে অনেকের কাছে ফ্রিল্যান্সিং পছন্দের একটি কাজ। অনেকের কাছে কাজের পছন্দের তালিকার শীর্ষে রয়েছে ফ্রিল্যান্সিং।

অনেকে অতিরিক্ত আয়ের জন্য অনলাইনে কাজ করে আয় করার জন্য ফ্রিল্যান্সিং বেছে নিয়েছেন। এছাড়াও, শিক্ষার্থীদের

উপার্জনের জন্য ফ্রিল্যান্সিং খুবই ভাল একটি সুযোগ করে দিয়েছে। ফ্রিলান্সিংয়ের জন্য অনেকগুলো মার্কেটপ্লেস রয়েছে। তবে

আপনি যদি প্রফেশনালভাবে ফ্রিল্যান্সিং করতে চান তাহলে এই প্ল্যাটফর্মগুলির মধ্যে একটি ব্যবহার করবেন: এল্যান্স, ফ্রিল্যান্সার,

ফাইভার ডট কম এবং আপওয়ার্ক।